ভ্যাকসিন আসার আগেই মারা যেতে পারে ২০ লাখ মানুষ, হু’র সতর্কতা 

করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের আগেই বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ২০ লাখে পৌঁছাতে পারে বলে সতর্ক করলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এখনই…

আপনার আঙুলের নখ যেসব অসুখের লক্ষণ নির্দেশ করে 

কখনো কী ভেবেছেন আপনার আঙুলের হলুদ এবং ক্ষয়ে যাওয়া নখগুলো হতে পারে কঠিন সব রোগের উপসর্গ? হ্যাঁ, অবশ্যই আপনার আঙুলের…

ডোপ টেস্টে পজেটিভ হওয়ায় চাকরি হারাচ্ছেন ২৬ পুলিশ সদস্য 

ডোপ টেস্টে পজেটিভ হওয়ায় ২৬ পুলিশ সদস্য বরখাস্তের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

লাইফ

এই পরামর্শগুলো অর্থনৈতিক মন্দায় দারুণ কার্যকর 

এই পরামর্শগুলো অর্থনৈতিক মন্দায় দারুণ কার্যকর

করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দা ডেকে এনেছে। মন্দার সময় মানুষ চাকরি হারায়, আয় কমে যায়। ২০০৭ ও ২০০৮ সালে বিশ্বজুড়ে যে অর্থনৈতিক মন্দা হয়েছিল, তাতে বহু প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হয়েছিল। মন্দার সময় পরিবারকে আর্থিকভাবে সুরক্ষায় রাখতে কিছু পরামর্শ।

জরুরি তহবিল তৈরি-
মোটামুটি ছয় মাসের জন্য নিজের পরিবার চালানোর অর্থ নিজের কাছে রাখুন। অর্থ হাতে না থাকলে তা সংগ্রহের চেষ্টা করুন। ছয় মাস না পারলেও তিন মাসের সমপরিমাণ অর্থ অন্তত রাখুন।

সঞ্চয়ীসঞ্চয়ী হোন-
তহবিল গঠনে সঞ্চয়ী হিসাব খুলে ফেলুন। নিজের নিয়মিত আয় থেকে কিছুটা অর্থ ভবিষ্যতের জন্য সঞ্চয় করুন। বেতনের ব্যাংক একাউন্টের বিপরীতে স্বল্পমেয়াদি কিন্তু একটু বেশি অর্থ কিস্তির ডিপিএস খুলুন। বেতন হলেই ব্যাংক জমা খাতে টাকা কেটে রাখবে। ক্রাইসিসের সময় মানুষের মন দূর্বল থাকে, এই সুযোগে নানা ফটকাবাজি বা দ্রুত-লাভের স্ক্রিম নিয়ে বাজারে অনেক ধান্দাবাজ হাজির হয়। সেগুলো থেকে দূরে থাকুন।

অপচয় ও বিলাসিতা বাদ দিন
নিয়মিত খরচ থেকে শুরু করে মাসিক খরচের একটা তালিকা তৈরি করুন। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে পরিস্থিতি নিয়ে খোলাখুলি কথা বলুন, সবার সম্মিলিত পরামর্শে কিছুটা কাটছাট করে ৩০ দিনের খরচে কিভাবে ৪০ বা ৪৫ দিন চলা যায়, সেবিষয়ে একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছান। খরচ লিপিবদ্ধ করে নিয়মিত রিভিউ করুন। কোনোভাবেই বাজে খরচ করবেন না। পুরোনো হয়ে গেলেও রেফ্রিজারেটরটি আরও কিছুদিন ব্যবহার করুন। নতুন মডেলের মুঠোফোনের দিকে নজর দেবেন না। জুতা-জামা না কিনলে ভালো। খরচ বাঁচাতে শীতাতপনিয়ন্ত্রণ যন্ত্র (এসি) চালানো বন্ধ রাখতে পারেন, কফি খাওয়া বাদ দিতে পারেন, বাইরে খাওয়া বাদ দিতে পারেন। বাজার খরচ কমিয়ে ফেলাটা সহজ নয়। তবু চেষ্টা করতেই হবে।

চাকরি/ব্যবসায় ঝুঁকি থাকলে বিকল্প ব্যবস্থা-
আপনি যে চাকরি বা ব্যবসা করেন, সেটি যদি হারানোর ঝুঁকি থাকে, তাহলে ভিন্ন পথ এখনই দেখুন। প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হবার ঝুঁকিতে আছে কিনা একটু খোঁজ নিন, মোটামুটি সময় থাকতে থাকতে কোম্পানিতে জমা হওয়া প্রভিডেন্ট ফান্ড, গ্র্যাচুইটি বাবদ জমা টাকা নিয়ে বের হয়ে যান। উঠতি কোনো ব্যবসায় কিছুটা কম বেতন পেলেও যোগ দিন। আর ব্যবসা নিজের হলে ব্যবসার ভেতরবাইরের হিসাব করুন, অপ্রয়োজনীয় বিষয়গুলো বাদ দিন। ব্যবসার নিয়মিত কর্মের পাশাপাশি কিছু নতুন কিছু যুক্ত করুন।



Related posts