লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ছে? 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক থাকায় চলমান ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করছে সরকার। লকডাউন পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে এ বিষয়ে…

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ: দেশে নতুন দরিদ্র্য ১ কোটি ৬৪ লাখ মানুষ 

করোনা প্রাদুর্ভাবের পর থেকে দেশের প্রত্যেকটি খাত চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক প্রতিষ্ঠান করোনার ধাক্কা সামাল দিতে না পেরে এরই মধ্যে…

‘করোনা মূলত বাতাসের মাধ্যমে ছড়ায়’ 

নভেল করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯-এর জন্য দায়ী সার্স-কোভ-২ ভাইরাস বাতাসের মাধ্যমে ছড়ায় না বলে এতদিন দাবি করে আসা হয়েছে। কিন্তু…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

Uncategorized

একইসঙ্গে বিয়ের পিড়িতে বসলেন মা ও মেয়ে 

একইসঙ্গে বিয়ের পিড়িতে বসলেন মা ও মেয়ে

বিয়ের অনুষ্ঠান, একসঙ্গে বিয়ে হবে ৬৩টি যুগলের। অবাক করার মত বিষয় হচ্ছে গণবিবাহ অনুষ্ঠানে একসঙ্গে বিয়ের পিড়িতে বসেছেন মা ও মেয়ে। এমন ঘটনাই হয়েছে ভারতের উত্তর প্রদেশের গোরক্ষপুরে!

বিয়ে হওয়া মায়ের বয়স ৫৩, নাম বেলি দেবী। তার স্বামী হরিহর ২৫ বছর আগেই মারা গেছেন। তারপর থেকে একাই পাঁচ সন্তানকে বড় করেন। এর মধ্যে দুই ছেলে এবং দুই মেয়ের বিয়েও দেন। বাকি ছিল ছোট মেয়ে। সম্প্রতি গণবিবাহের আসরেই ছোট মেয়ে ইন্দুর বিয়ে দেবেন বলে ঠিক করেন।

কিন্তু ২৭ বছর বয়সি মেয়ের বিয়ের আসরে তিনি নিজেও বিয়ে করলেন। বর মৃত স্বামীর ভাই, নাম জগদীশ। পেশায় কৃষক ৫৫ বছরের ওই ব্যক্তি। তিনিও এতদিন অবিবাহিতই ছিলেন। ওই অনুষ্ঠানে মোট ৬৩টি যুগল বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। এর মধ্যে এক মুসলিম যুগলও ছিল।

এই বিয়ে প্রসঙ্গে বেলি দেবী বলেন, ‘‌‌আমার দুই ছেলে এবং দুই মেয়ের বিয়ে ইতিমধ্যে হয়ে গিয়েছে। তাই ছোট মেয়ের বিয়েতেই দেবরকে বিয়ে করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিই। এতে আমার সন্তানরা প্রত্যেকেই খুশি।’‌

এদিকে, ২৯ বছর বয়সি রাহুল নামে এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে ইন্দুর। তবে মায়ের বিয়েতেই যেন সবচেয়ে বেশি আনন্দিত তিনি। বলে, ‘‌আমার মা এবং কাকা দুজনে মিলে আমাদের বিয়ে দিয়েছে। এতদিন তারা আমাদের খেয়াল রাখত, এবার নিজেদের খেয়াল রাখতে পারবে।’

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর অনেকেই অবাক হয়েছেন। তবে কেউ কেউ ওই মহিলার এই কাজকে সমর্থনও জানিয়েছেন।‌



Related posts