স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট২০ ফোনেই থাকছে না হেডফোন 

স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি নোট২০ কিংবা নোট২০ আলট্রা ফোনটি যদি কেউ কিনে থাকেন তাহলে প্যাকেটটি হাতে নিয়েই খানিকটা হাল্কা লাগতে পারে। কেন…

বরেণ্য সুরকার আলাউদ্দিন আলী আর নেই 

বরেণ্য গীতিকার ও সুরকার আলাউদ্দিন আলী মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন)। রোববার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে…

স্বাভাবিক হচ্ছে ট্রেন চলাচল 

দীর্ঘদিন পর স্বাভাবিক হচ্ছে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল। আগামী ১৫ আগস্টের পর পর্যায়ক্রমে সকল আন্তঃনগর ট্রেন চালু হ‌বে বলে জানিয়েছেন রেলপথ…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

বিশ্ব

করোনার ভ্যাকসিনের সুখবর দিল রাশিয়া! 

করোনার ভ্যাকসিনের সুখবর দিল রাশিয়া!
Neal Browning receives a shot in the first-stage safety study clinical trial of a potential vaccine for the COVID-19 coronavirus, Monday, March 16, 2020, at the Kaiser Permanente Washington Health Research Institute in Seattle. Browning is the second patient to receive the shot in the study. (AP Photo/Ted S. Warren)

করোনায় বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। বিশ্ববাসী সমাধান খুঁজছে ভ্যাকসিনে। গবেষক বিজ্ঞানীরাদের চোখের ঘুম উধাও ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য। তবে এরমধ্যে ভ্যাকসিনের সুখবর দিয়েছে রাশিয়া। আগামী ১০ অগস্টের মধ্যে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিনকে রুশ প্রশাসন ছাড়পত্র দেয়ার পরিকল্পনা করেছে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন কাতের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, গামালেই ইনস্টিটিউট অফ এপিডেমোলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজি করোনার এই ভ্যাকসিনটি তৈরি করেছে। গত ১৮ জুন রাশিয়ার সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হয়। বিশ্বের প্রথম প্রতিষ্ঠান হিসেবে তারাই স্বেচ্ছাসেবকদের উপরে এই ওষুধের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করে। মোট ৩৮ জন স্বেচ্ছাসেবকের উপরে এক মাস ধরে এই পরীক্ষা চালানো হয়। আবেদনের দুই সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে এই অনুমোদন পেতে চলেছে তারা।

১৯৫৭ সালে বিশ্বে প্রথম উপগ্রহ উৎক্ষেপণ করে করে নজির সৃষ্টি করেছিল তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন। সেই কৃত্রিম উপগ্রহের নাম ছিল স্পুটনিক-১। করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কারকে সেই ঘটনার সঙ্গে তুলনা করেছেন রাশিয়ার সভরেন ওয়েল্থ ফান্ডের প্রধান কিরিল ডিমিত্রিত।

তিনি বলেছেন, করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কার স্পুটনিক মুহূর্ত। স্পুটনিকের সাফল্য মার্কিনিদের বিস্মিত করেছিল। ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রেও ওই একই ঘটনা ঘটতে চলেছে। এবারও প্রথম সাফল্য স্পর্শ করবে রাশিয়া। এই তহবিল থেকে রাশিয়ায় করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য চলতি গবেষণায় অর্থের যোগান দেয়া হচ্ছে।

সরকারি ছাড়পত্র পেলে আগামী অগস্ট মাসেই রাশিয়ায় বাজারে চলে আসবে মারণ ভাইরাসের ভ্যাকসিন। আর সেপ্টেম্বরে অন্যান্য দেশে এটি অনুমোদন পাবে বলে মনে করা হচ্ছে। বাজারে আসার পরে প্রথমে করোনা যোদ্ধাদের এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে।

চলতি বছরের মধ্যে নিজেদের দেশে পরীক্ষামূলক কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ৩ কোটি ডোজ উৎপাদনের পরিকল্পনা নিয়েছে রাশিয়া। এছাড়া বিদেশে যাতে আরো ১৭ কোটি ভ্যাকসিন উৎপাদন করা যায়, সেই লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে চলেছে তারা।

Related posts