সাকিবের ফেরার অপেক্ষায় বাংলাদেশ 

আর মাত্র গুণে গুণে কয়েকঘণ্টা। তারপরই কেটে যাবে নিষেধাজ্ঞা, আবারও ক্রিকেটে ফিরবেন সাকিব আল হাসান। বাঁহাতি অলরাউন্ডারকে বরণ করে নিতে…

আবারও বিয়ের বাঁধনে জড়ালেন অর্ণব 

আবারও বিয়ে করেছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী শায়ান চৌধুরী অর্ণব। ২৮ অক্টোবর নতুন করে পরিণয়ে জড়িয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গীতশিল্পী সুনিধি নায়েকের…

বাংলাদেশে আসবেন এরদোয়ান 

মুজিববর্ষ উদযাপনে অংশ নিতে আগামী বছরের মার্চে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান বাংলাদেশ সফর করতে পারেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

চলমান

নিম্নআয়ের মানুষদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার বানাচ্ছে ‘গ্রীণ ভয়েস’ 

নিম্নআয়ের মানুষদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার বানাচ্ছে ‘গ্রীণ ভয়েস’

করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধে নিজেরাই হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করে তা নিম্নআয়ের মানুষদের মাঝে বিতরণের বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে পরিবেশবাদী যুব সংগঠন ‘গ্রীণ ভয়েস’। একইসঙ্গে খাদ্য সংকটে থাকা রাজধানীর শ্রমজীবী মানুষদের মধ্যে বিনামূল্যে খাবার সরবরাহের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

দেশে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এই অবস্থায় জীবানুরোধক হ্যান্ড স্যানিটাইজার পণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে অধিক মুনাফায় মানুষের কাছে বিক্রি করছে অসাধু ব্যবসায়ীরা। সে প্রেক্ষিতে বিপন্ন মানুষের পাশে দাঁড়াতেই বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে সংগঠনের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

হ্যান্ড স্যানিটােইজার তৈরি করছে পরিবেশবাদী যুব সংগঠন গ্রীন ভয়েস।

বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, রাজধানীর লালমাটিয়ার ডি ব্লকের একটি ভবনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদনের কাজ করছে গ্রীণ ভয়েসের কর্মীরা। বিশেষজ্ঞদের নির্দেশনা অনুযায়ী, ৭০ শতাংশ আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল, গ্লিসারিন, লেমন ওয়েল ও ডিস্টিলড ওয়াটার ব্যবহার করে এই স্যানিটাইজার তৈরি করা হচ্ছে। গত তিন দিন ধরে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন ও বোতলজাত করার পাশাপাশি তা বিনামূল্যে (ফ্রি) বিতরণ করা হচ্ছে।

গ্রীণ ভয়েসের প্রধান সমন্বয়কারী আলমগীর কবীর জানান, করোনাভাইরাসের ঝুঁকি থাকলেও আমাদের প্রস্তুতির ঘাটতি রয়েছে। এক্ষেত্রে সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা পেশাজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া দরকার। সেই বিবেচনা থেকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন ও বিতরণ কার্যক্রম নেওয়া হয়েছে। এছাড়া মানুষ গৃহবন্দি হয়ে যাওয়ায় শ্রমজীবী মানুষরা সব থেকে বিপাকে পড়েছে। প্রতিদিনের খাবার যোগাড় করা তাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়ছে। তাই তাদের মধ্যে খাবার সরবরাহের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দু-এক দিনের মধ্যে এই কার্যক্রম শুরু হবে।

তিনি আরো বলেন, সম্পূর্ণ ব্যক্তি অনুদানের এই কার্যক্রম চলছে। তাই এই কাজে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। এছাড়া সংগঠনের পক্ষ থেকে সচেতনতা কার্যক্রম চালানো হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন ধরে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠি, ছাত্র ইউনিয়ন, যুব ইউনিয়ন, জুম বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনসহ বেশকিছু প্রতিষ্ঠান হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন ও বিতরণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া জেলায় জেলায় তরুণদের স্বত:স্ফূর্ত উদ্যোগও লক্ষ্য করা যাচ্ছে।



Related posts