উত্তর কোরিয়ার যে মিসাইল আতঙ্ক হয়ে উঠেছে ইসরায়েলের জন্য 

করোনার মাঝেও ঝমকালো কুজকাওয়াজে নিজেদের সামরিক সক্ষমতা বিশ্বের কাছে তুলে ধরেছে উত্তর কোরিয়া। সেই কুজকাওয়াজে প্রদর্শন করা হয় ‘হোয়াসং-১৫’ ব্যালিস্টিক…

কলকাতায় চিকিৎসা নিতে এখনই বাংলাদেশিদের না যাওয়ার পরামর্শ 

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যের সংখ্যা এখনো নিয়ন্ত্রণের বাইরে। একদিন কমে কো আরেক দিনে বেড়ে যায় শনাক্ত ও আক্রান্ত। প্রতিবেশি…

ওয়েব সিরিজ ‘মির্জাপুর’র বিরুদ্ধে বাস্তবের মির্জাপুর সাংসদের টুইট 

ভারতের ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ বিস্তর। প্রতিবার ওয়েব সিরিজ নিয়ে কেউ না কেউ অভিযোগের আঙুল তুলছেনই। এবার সেই আঙুল উঠেছে…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

বিশ্ব

প্যারিসে শিক্ষক হত্যা, প্রেসিডেন্ট বললেন ‘ইসলামি সন্ত্রাসী হামলা’ 

প্যারিসে শিক্ষক হত্যা, প্রেসিডেন্ট বললেন ‘ইসলামি সন্ত্রাসী হামলা’

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে এক শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করার হয়েছে। এ ঘটনাকে ‘ইসলামি সন্ত্রাসী হামলা’ বলে বর্ণনা করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে ওই হামলাকারী। শুক্রবার প্যারিসের উত্তর-পশ্চিমে কনফ্লো-সান্ত-অনোরিন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানায়, ঘটনার কিছুক্ষণ পরই পুলিশের গুলিতে নিহত হয় হামলাকারী। নিহত ব্যক্তি তার ছাত্রদের নবী সম্পর্কে বিতর্কিত কার্টুন দেখিয়েছিলেন। স্থানীয় সময় বিকাল ৫টার দিকে একটি স্কুলের সামনে হামলার ঘটনা ঘটে। ঘটনা তদন্ত করছে সন্ত্রাস বিরোধী পুলিশ বিভাগ।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেছেন, ওই শিক্ষককে হত্যা করা হয়েছে। কারণ তিনি ‘মত প্রকাশের স্বাধীনতা’র শিক্ষা দিচ্ছিলেন। নিহত ব্যক্তির নাম এখনো প্রকাশ করা হয়নি।

গ্রেপ্তারের চেষ্টার সময় পুলিশের গুলিতে মারা যায় হামলাকারী। তার সম্পর্কেও বিস্তারিত তথ্য জানায়নি ফ্রান্স পুলিশ।

ঘটনা সম্পর্কে যা জানা গেছে
কনফা-সাঁত-ওনোরিন এলাকায় বড় আকারের একটি ছুরি হাতে নিহত ব্যক্তির ওপর হামলা চালিয়ে তাকে গলা কেটে হত্যা করে হামলাকারী। এরপর হামলাকারী পালানোর চেষ্টা করে। তবে স্থানীয়রা বিষয়টি পুলিশকে জানানোর ফলে তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

পুলিশ সদস্যরা চিৎকার করে হামলাকারীকে আত্মসমর্পণ করতে বললে সে উল্টো পুলিশকে হুমকি দেয়। এক পর্যায়ে পুলিশ হামলাকারীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই সে মারা যায়।

ফ্রান্সের পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে করা এক টুইটে স্থানীয়দের ওই অঞ্চল এড়িয়ে চলাচল করতে অনুরোধ করা হয়েছে।



Related posts