২ ডোজ টিকা নিয়েও তৃতীয়বার করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসক 

একবার, দুইবার নয়, তৃতীয়বার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ভারতের এক চিকিৎসক। মুম্বাইয়ের ২৬ বছরের এই চিকিৎসক গত ১৩ মাসের মধ্যে তৃতীয়বার…

লকডাউন চলবে 

মহামারী করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে চলমান বিধিনিষেধ (লকডাউন) আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্তই বলবৎ থাকবে এবং আগামী ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনার…

দায়মুক্তি পাচ্ছেন না অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারীরা 

সরকারি চাকরি আইনে ২০১৮ সালে সরকারি কর্মচারীদের নানাবিধ সুবিধা নিশ্চিত করেছে। তবে এর তিন বছর কাটতে না কাটতেই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

খেলা

ব্রাজিলের বিতর্কিত গোলে রাগে ফুসছে কলম্বিয়া 

ব্রাজিলের বিতর্কিত গোলে রাগে ফুসছে কলম্বিয়া

কোপা আমেরিকায় জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছে স্বাগতিক ব্রাজিল। গতকাল বুধবার (বাংলাদেশ সময় অনুযায়ী আজ বৃহস্পতিবার) অনুষ্ঠিত কোপা আমেরিকায় ব্রাজিল ২-১ গোলে হারিয়েছে কলম্বিয়াকে। শুরুতে ধুকতে থাকা কলম্বিয়াকে বাইসাইকেল শটের গোলে এগিয়ে দিয়ে সবাইকে মুগ্ধ করেছেন লুইস দিয়াজ।

দক্ষিণ আমেরিকান চ্যাম্পিয়নশীপের গ্রুপ পর্বের টানা তিনটি জয়ের মাধ্যমে পুর্ন ৯ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে কোচ তিতের শিষ্যরা। সেইসাথে আন্তর্জাতিক ফুটবলে টানা জয়ের সংখ্যা ১১ ম্যাচে উন্নীত করেছে ব্রাজিল।

তবে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে হেডের সাহায্যে রবার্তো ফিরমিনোর গোলের আগে নতুন এক বিতর্কের জন্ম দেন রেফারি। গোলের আগ মুহুর্তে নেইমারের শটের বলটি গায়ে লেগেছিল কর্তব্যরত আর্জেন্টাইন রেফারি নেস্টর পিটানার। এতে খেলা থামিয়ে দেয় কলম্বিয় ফুটবলাররা। কিন্তু খেলা চালিয়ে যাবার নির্দেশ দেন ওই রেফারি।

এই ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় তুলে কলম্বিয় সমর্থকরা। ভাইরাল হয়ে যায় ওই রেফারির নাম। যেখানে তারা কৌতুক করে লিখেছেন, তিনি ছিলেন ‘ব্রাজিলের ১২তম খেলোয়াড়’।

গোলটি পুনর্বিবেচনার প্রয়োজনীয়তার দাবী আরো জোরদার হয় যখন ব্রাজিলের হয়ে ইনজুরি টাইমে জয়সুচক গোল করেন ফাকায় থাকা কাসেমিরো। অবশ্য হারের পরও চার পয়েন্টের পুজি নিয়ে এখনো গ্রুপের পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে কলম্বিয়া। ফলে শেষ আট নিশ্চিত হয়ে গেছে দলটির।

ম্যাচের ১০ মিনিটেই স্রোতের বিপরীতে গিয়ে গোল করে কলম্বিয়াকে এগিয়ে দেন পোর্তো উইঙ্গার দিয়াজ। হুয়ান কুয়াদ্রাদোর চমৎকার একটি ক্রসের বল পেনাল্টি বক্সের সামান্য বাইরে থেকে হেলিকপ্টার শটে জালে জড়ান অরক্ষিত এই তারকা।

এরপর থেকে রক্ষনাত্মক কৌশল আরো সুদৃঢ় করে কলম্বিয়া। আর একর পর এক আক্রমন রচনা করতে থাকে ব্রাজিল। কিন্তু ম্যাচের ৭৮তম মিনিট পর্যন্ত ব্রাজিলকে আটকে রাখতে সক্ষম হয় কলম্বিয়া। ৭৮ মিনিটে দর্শনীয় হেডে ব্রাজিলকে সমতায় ফিরিয়ে আনেন ফিরমিনো। তার জোড়ালো হেডের বলটি কলম্বিয় গোল রক্ষক ডেভিড ওসপিনাকে পারস্ত করে।

তবে রেফারি কান্ডের প্রতিবাদে বাক বিতান্ডায় জড়িয়ে পড়েন কলম্বিয়রা। গোলের আগ মুহুর্তে নেইমারের শটের বল রেফারির গায়ে লাগার ঘটনায় তারা খেলা বন্ধ করে দেন কয়েক মুহুর্তের জন্য। কিন্তু ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল পরিচালনাকারি রেফারি পিটানা ভিএআরের সহায়তার বিষয়টিও প্রত্যাখ্যান করেন এবং খেলা চালিয়ে যাবার নির্দেশ দেন।

প্রতিক্রিয়ায় জুভেন্টাসের স্ট্রাইকার কুয়াদ্রাদো বলেন,‘ যেখানে আমরা সর্বস্ব দিয়ে বিশ্ব সেরাদের বিপক্ষে লড়ছি সেখানে এমন একটি ঘটনা দুঃখজনক। এমন ঘটনার কারনেই আমরা ম্যাচটি হেরে গেছি। এমন একজন রেফারি এই ঘটনাটি ঘটালেন, যার রয়েছে আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনার বিশাল অভিজ্ঞতা। যিনি পরিচালনা করেছেন বিশ্বকাপের ফাইনাল। তিনিই এমন একটা ভুল করলেন যেটি আমাদের হৃদয় ভেঙ্গে দিয়েছে। অতীতে আমরা কখনো এমন একটি সুযোগ পাইনি।’

তাদের ওই ক্ষোভ আরো বেড়ে যায়, যখন অতিরিক্ত ১০ মিনিটের ম্যাচে নেইমারের কর্নারের ক্রসের বল কাসেমিরো হেড করে ফের কলম্বিয়ার জালে জড়ান। এতেই ২-১ গোলের ব্যবধানে পরাজয় নিশ্চিত হয় কলম্বিয়ার।



Related posts