উত্তর কোরিয়ার যে মিসাইল আতঙ্ক হয়ে উঠেছে ইসরায়েলের জন্য 

করোনার মাঝেও ঝমকালো কুজকাওয়াজে নিজেদের সামরিক সক্ষমতা বিশ্বের কাছে তুলে ধরেছে উত্তর কোরিয়া। সেই কুজকাওয়াজে প্রদর্শন করা হয় ‘হোয়াসং-১৫’ ব্যালিস্টিক…

কলকাতায় চিকিৎসা নিতে এখনই বাংলাদেশিদের না যাওয়ার পরামর্শ 

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যের সংখ্যা এখনো নিয়ন্ত্রণের বাইরে। একদিন কমে কো আরেক দিনে বেড়ে যায় শনাক্ত ও আক্রান্ত। প্রতিবেশি…

ওয়েব সিরিজ ‘মির্জাপুর’র বিরুদ্ধে বাস্তবের মির্জাপুর সাংসদের টুইট 

ভারতের ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ বিস্তর। প্রতিবার ওয়েব সিরিজ নিয়ে কেউ না কেউ অভিযোগের আঙুল তুলছেনই। এবার সেই আঙুল উঠেছে…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

লাইফ

সকালে ঘুম থেকে উঠেই যেসব ভুল শরীরের জন্য ক্ষতিকর 

সকালে ঘুম থেকে উঠেই যেসব ভুল শরীরের জন্য ক্ষতিকর

‘ভোরবেলাতেই বলা যায় দিনটি কেমন যাবে’। এ প্রবাদ দেখেই বোঝা যায় সকালটা মানুষের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ। ঘুম থেকে উঠে যদি মন মেজাজ ভালো থাকে তাহলেই দিনের বাকী সব কাজ ভালোভাবে করা যায়। আর সকালে ঘুম থেকে উঠেই যদি ভুল করে ফেলা হয় তাহলে দিনের বাকীটা সময় ভালো আশা করা যায় না। এমনটি নিয়মিতই হয় অনেকের জীবনে। দিনের শুরুতে কিছু ভুল মাটি করে দেয় সারাটা দিন।

অবশ্য এসব ভুল অনেকটা অজান্তেই অভ্যাসে পরিণত হয়। অভ্যাস হয়ে যাওয়ায় অনেকে আবার একে ভুল হিসেবে মনে করেন না। টাইমস অফ ইন্ডিয়া এ ধরনের কিছু ভুলের কথা তুলে ধরেছে।

ঘুম থেকে উঠেই জিমে যাওয়া নয়
অনেকেই আছেন যারা ঘুম থেকে উঠেই তড়িঘড়ি করে জিমের পথে রওয়ানা হন। এটি করা যাবে না। সকালের শুরুটা একটু ধীরে হোক। কারণ সকালে আমাদের পেশী অত কর্মক্ষণ থাকে না। দিনটি শুরু করুন প্রার্থনার মধ্যদিয়ে। কিংবা আধ্যাত্মিক কোনো গান শুনেও দিন শুরু হতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, দিনের শুরু হোক হালকা ব্যায়াম বা যোগ দিয়ে। তারপর জিমে যান। কারণ হালকা এক্সসারসাইজ না করে জিম শুরু করলে হিতে বিপরীত হতে পারে। এটি বডি টোনিংয়েও সাহায্য করে। আর সকালে হালকা ব্যায়াম করলে মন ভালো থাকে। ১৫ মিনিট যোগের পর একটা লম্বা শ্বাস নিন। কিছুক্ষণ চুপচাপ বসে থাকুন। দেখবেন মনে প্রশান্তি আসবে।

স্ট্রেচিং নয়
আমরা যখন সকালে ঘুম থেকে উঠি তখন আমাদের পেশি একদম শান্ত থাকে। যার ফলে হঠাৎ করেই স্ট্রেচিং শুরু করলে পেশিতে টান ধরতে পারে। যার ফলে সারাদিন নানা রকম সমস্যার মুখে পড়তে হয়। তাই সকালে উঠেই স্ট্রেচিং নয়য়। আর স্ট্রেচিং শুরু করার আগে লম্বা করে শ্বাস নেবেন।

সকালে চিনি ছাড়া চা
মেটাবলিজম বা বিপাকের হার বাড়াতে চাইলে দিনের শুরুতেই এক কাপ চা খাওয়া জরুরি। সকালের হালকা ব্যায়ামের পর চা অবশ্যই খাবেন। চা খেয়ে তবেই জিমে যান। তবে এই চা হতে হবে অবশ্যই চিনি ও দুধ ছাড়া। এমনকি কফি খেলেও তাতে মেশাবেন না। সেই সঙ্গে গরম পানিতে লেবু দিয়ে খান। চায়ের বদলে গ্রিন টিও খাওয়া যেতে পারে।

ঘুম থেকে উঠেই হাতে ফোন নয়
ঘুম থেকে চোখ খুলেই ফোন ঘাঁটা আপনার অভ্যাস? তাহলে আজই বন্ধ করুন সেই অভ্যাস। সকালে উঠে ফোন ঘাঁটার অভ্যেস থাকলে তা অবিলম্বে বন্ধ করুন। কারণ বিশ্বের কোনো সমস্যার সমাধানই সকালের ওই পাঁচ মিনিটে হবে না। বরং যে বিষয়ে মন দিলে আপনি ভালো থাকবেন সেদিকে নজর দিন। সকাল ১০ টার আগে পারতপক্ষে হোয়্যাটসঅ্যাপও এড়িয়ে চলুন। ফোন, মেইলের জবাব অফিস গিয়ে দেয়ার অভ্যাস করুন। তাহলে আপনি নিজেও ভালো থাকবেন আর কাজেও মন বসবে। সকালে উঠে মন বিক্ষিপ্ত হলে সারাদিনের কাজে খুবই সমস্যা হয়। অফিসে গিয়েও একটু সময় বের করে ২০ মিনিট নিজের মতো বিশ্রাম নেবেন।

সকালের নাস্তা বাদ নয়
সকালের নাস্তা বাদ দিলেই সেখান থেকে ওবেসিটি, ডায়াবেটিসের মতো নানাবিধ সমস্যা আসতেই পারে। কমতে পারে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। প্রচুর খেতে হবে এমন নয়। কিন্তু সকালের নাস্তা করুন। কারণ রাতের পর দীর্ঘ সময় পেট ফাঁকা থাকছে। তাই ব্রেকফাস্টের মাধ্যমে সেই উপবাস ভঙ্গ করা খুব জরুরি। এছাড়াও সকালে নাস্তা না করলে সারাদিনের খাওয়ার ইচ্ছেটাও ঠিক থাকে না। তাই কিছু অবশ্যই খান। ভেজানো আমন্ড, ব্রেড, রুটি, তরকারি, ফল যা ইচ্ছে।

ঘুম থেকে উঠেই ব্যস্ততা নয়
ঘুম থেকে উঠেই খুব ব্যস্ত হয়ে হুড়োহুড়ো করবেন না। কারণ এতে মন সঠিক সংকেত পায় না। আর তাই মনোবিদরা বলছেন ঘুম থেকে উঠে অন্তত ১০ মিনিট প্রকৃতির শব্দ শুনুন। পাখির ডাক বা অন্য যা কিছু হতে পারে। সকালে উছেই অযথা চিৎকার চেঁচামেচিতে যাবেন না। কারণ এতে ইতিবাচক শক্তি নষ্ট হবে।

আগে থেকেই দিনের পরিকল্পনা
কাল সকালে উঠে কোন কোন কাজ করবেন সেই পরিকল্পনা আগেই করে রাখুন। তাহলে সমস্যা কম হবে। এতে অতিরিক্ত সময় নষ্ট হবে না। সাকলের নাস্তায় কি খাবেন, কি পরে অফিস যাবেন সবকিছুই হাতের সামনে রাখুন। সকালে উঠে এই পরিকল্পনা করতে বসলে কিন্তু অনেকটা সময় নষ্ট হয়।

সকালে উঠে ব্ল্যাক কফি আর সিগারেট নয়
সকালে উঠে একটা সিগারেটের সঙ্গে কড়া করে ব্ল্যাক খপি না হলে আর আমেজ কোথায়? এসব বলা বন্ধ করতে হবে। সকালে উঠে দিনের শুরু করুন নিয়ম মেনে। এমন কিছু করবেন না যাতে লোক দেখাতে গিয়ে নিজের শরীরের ক্ষতি হয়। খালি পেটে সিগারেট কিন্তু শরীরের হজমশক্তি নষ্ট করে দেয়। তাই খালি পেটে এসব কিছুই নয়। সুযোগ না থাকলে শুধু এক গ্লাস পানি খান। নইলে ডিটক্স ওয়াটারেই দিনের শুরু হোক। সেই সঙ্গে খান এক বাটি ফল। চিনি ছাড়া বিস্কুট। এরপর খেতে পারেন ব্ল্যাক কফি। এইভাবে চললে দেখবেন সুস্থ থাকবেন দীর্ঘদিন।



Related posts