উত্তর কোরিয়ার যে মিসাইল আতঙ্ক হয়ে উঠেছে ইসরায়েলের জন্য 

করোনার মাঝেও ঝমকালো কুজকাওয়াজে নিজেদের সামরিক সক্ষমতা বিশ্বের কাছে তুলে ধরেছে উত্তর কোরিয়া। সেই কুজকাওয়াজে প্রদর্শন করা হয় ‘হোয়াসং-১৫’ ব্যালিস্টিক…

কলকাতায় চিকিৎসা নিতে এখনই বাংলাদেশিদের না যাওয়ার পরামর্শ 

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যের সংখ্যা এখনো নিয়ন্ত্রণের বাইরে। একদিন কমে কো আরেক দিনে বেড়ে যায় শনাক্ত ও আক্রান্ত। প্রতিবেশি…

ওয়েব সিরিজ ‘মির্জাপুর’র বিরুদ্ধে বাস্তবের মির্জাপুর সাংসদের টুইট 

ভারতের ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ বিস্তর। প্রতিবার ওয়েব সিরিজ নিয়ে কেউ না কেউ অভিযোগের আঙুল তুলছেনই। এবার সেই আঙুল উঠেছে…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

চলমান

সবধরণের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ 

সবধরণের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সবধরণের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। এই ঘোষণার আওতায় বাস, ট্রেন, নৌযান ও ফেরি চলাচল বন্ধ থাকবে। সরকারের বিভিন্ন কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন।

ইতিমধ্যে আজ মঙ্গলবার থেকে লোকাল ও মেইল ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। আন্তঃনগর বন্ধ হবে ২৬ মার্চ থেকে। শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি এবং পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাটে ফেরি চলাচল আজ দুপুর থেকে বন্ধ হবে। আর আগামী ২৬ মার্চ থেকে বন্ধ হচ্ছে বাস চলাচল।

বাস

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় আগামী ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সকালে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ভিডিও বার্তায় গণপরিবহন বন্ধের কথা জানান।

বার্তায় তিনি বলেন, দেশের মানুষ, যাত্রীসাধারণ, গাড়ির মালিক শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সবার জ্ঞাতার্থে জানানো যাচ্ছে আগামী ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল ২০২০ পর্যন্ত সারাদেশে গণপরিবহন লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, ওষুধ, জরুরি সেবা, জ্বালানি, পচনশীল পণ্য পরিবহনে নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। পণ্যবাহী যানবাহনে কোনও যাত্রী পরিবহন করা যাবে না।

ট্রেন

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে রেলওয়ের সব লোকাল ও মেইল ট্রেন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) থেকে এসব ট্রেন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। রেলওয়ের মহাপরিচালক শামছুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। আর আগামী বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) থেকে আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে রেলপথ মন্ত্রণালয়। আগামী ২৬ মার্চ থেকে দেশে সব ধরনের ট্রেনের টিকিট বিক্রিও বন্ধ ঘোষণা করা হচ্ছে।

নৌযান

দেশের সব রুটে আজ মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) থেকে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নৌ-মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর খান।

বিআইডব্লিউটিএ জানায়, করোনার বিস্তার রোধে সারাদেশে আজ থেকে যাত্রীবাহী নৌ চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে পণ্যবাহী নৌ চলাচল করবে। মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিকাল থেকে দেশের নদীবন্দরে চলাচলকারী সব যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মন্ত্রণালয় থেকে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত অব্যাহত থাকবে।

ফেরি

দেশের অন্যতম প্রধান দুই ফেরিঘাটে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। দুপুরের পর থেকে মুন্সীগঞ্জে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে এবং মানিকগঞ্জ থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগের অন্যতম রুট শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে সব ধরনের ফেরি চলাচল বন্ধ থাকবে। আজ মঙ্গলবার দুপুর ২টা থেকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক (এজিএম) শফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।



Related posts