বিবিসির ১০০ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় অর্ধেকই আফগান 

২০২১ সালে বিশ্বে ১০০ অনুপ্রেরণাদায়ী ও প্রভাবশালী নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে বিবিসি। সমাজ, সংস্কৃতি ও বিশ্বকে নতুন করে সাজাতে যে…

উমরাহ থেকে ফিরে আধা মিনিটের জন্য হলেও প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে চান মাহি 

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে এক টেলিফোন আলাপ ভাইরালের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে ডা. মুরাদ হাসান…

টিউলিপ সিদ্দিক এখন ব্রিটেনের শ্যাডো ইকোনমিক সেক্রেটারি 

যুক্তরাজ্যের লেবার পার্টির নতুন ছায়া মন্ত্রিসভার ইকোনমিক সেক্রেটারির দায়িত্ব পেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ আইনপ্রণেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাগ্নি টিউলিপ…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

ওপার বাংলা

সিনেমার সংলাপে মোদি সরকারকে তোপ মমতার 

সিনেমার সংলাপে মোদি সরকারকে তোপ মমতার

ভারতের শোলে সিনেমার একটি বিখ্যাত সংলাপকে ব্যবহার করে কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেস প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ভারতের অন্যান্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে সরব হওয়ার বার্তা দিয়ে মমতা বলেন, ‘জো ডার গ্যায়া, সামঝো ও মার গ্যায়া (যে ভয় পেল, মনে করো সে মারা গেল)।’

মমতা বলেন, ‘কেন্দ্র একদিন নিজের কর্মকাণ্ডের জন্য অনুশোচনা করবে। আমরা ওদের ভয় পাই না। বাংলা হারতে শেখেনি। বাংলা মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে জানে।’

মোদি সরকারের একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে দেশের সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের একত্রিত হওয়ার বার্তা দেন মমতা। পাশাপাশি দেশের সব আইএএস ও আইপিএসদের এই একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠার আহ্বান জানান।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে একটি লক্ষণ রেখা থাকা উচিত। কিন্তু ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর ওপর বুলডোজার চালাচ্ছে।

মমতা বলেন, দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কেন্দ্র সরকার ব্যাকফুটে চলে যাওয়ার পর সেই ব্যর্থতা থেকে নজর ঘোরাতে এখন রাজ্যগুলোকে টার্গেট করছে। তবে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে লড়াই কেউ রুখতে পারবে না। পশ্চিমবঙ্গ থেকে রাজ্যের মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেন দিল্লিতে তলব করা হলো সেই প্রশ্নও তোলেন তিনি।

রাজনৈতিক মহলের মতে, ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটের আগাম প্রস্তুতি হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন থেকেই ক্ষেত্র তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছেন। মমতার দল তৃণমূলের তরফ থেকে এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ট্রেন্ড হতে শুরু করেছে ‘বেঙ্গলি প্রাইম মিনিস্টার’।

ফলে আগামী লোকসভা ভোটকে সামনে রেখে এখন থেকেই মমতা ঘর গোছানোর কাজ শুরু করেছেন বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে।

২০২৪ সালে বারানসীর বুকে মমতা-মোদি টক্করের জল্পনাও শুরু হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের টুইট থেকে। সব মিলিয়ে এখন থেকেই ভারতের বিরোধীদের এবং অবিজেপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের একত্র করে পথ চলার ডাক দিলেন মমতা।



Related posts