লেন্স গলে চোখই হারাতে বসেছিলেন নায়িকা 

দিন দিন বেড়েই চলছে কন্টাক্ট লেন্সের ব্যবহার। বিশেষ করে তরুণীরা খুবই আগ্রহী চোখ আকর্ষণীয় করে তোলার এই অনুষঙ্গে। অনেক নায়িকা-মডেলও…

ফেশিয়াল রিকগনিশনে ৬৫ কোটি ডলার খসছে ফেসবুকের 

ফেসবুকের ফেশিয়াল রিকগনিশন বিষয়ে ক্লাস অ্যাকশন মামলা ৬৫ কোটি মার্কিন ডলারে মীমাংসার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছেন মার্কিন ফেডারেল বিচারক। দুই পক্ষের…

নতুন দল নয়, নির্বাচনী লড়াইয়ের ঘোষণা ট্রাম্পের 

২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে নতুন রাজনৈতিক দল খোলার পরিকল্পনা নেই বলে…

সব সংবাদ-তথ্য-ভিডিও

বিশ্ব

৭৫ বছরের স্বাধীন ভারতে প্রথম কোনো নারীর ফাঁসি হতে চলেছে! 

৭৫ বছরের স্বাধীন ভারতে প্রথম কোনো নারীর ফাঁসি হতে চলেছে!

স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপন করেত যাচ্ছে ভারত। দেশের স্বাধীনতার দীর্ঘ ইতিহাসে আজ পর্যন্ত কোনো নারীর ফাঁসি হয়নি। অথচ দীর্ঘ এই ইতিহাস এবার নতুন করে লিখতে হবে। স্বাধীনতার পরে এই প্রথম কোনো নারীর ফাঁসির সাক্ষী হতে চলেছে ভারত। বিরল অপরাধে দোষী সাব্যস্ত উত্তরপ্রদেশের নারী শবনমের ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ করেছে শীর্ষ আদালত।

প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দও। এখন সময় কেবল ডেথ ওয়ারেন্টের। সেটা পেয়ে গেলেই ফাঁসি কার্যকর করা হবে। আপাতত তাই যোগীরাজ্যের মথুরায় শুরু হয়ে গেছে ফাঁসির প্রস্তুতি।

ভারতের গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশে নারীদের একমাত্র ফাঁসির ঘরটি রয়েছে মথুরার জেলে। যদিও এখনও ফাঁসির চূড়ান্ত তারিখ ঠিক হয়নি। তবুও ইতোমধ্যেই সেখানে হাজির হয়ে গেছেন মীরাটের বাসিন্দা পবন জল্লাদ। নির্ভয়ার ধর্ষকদের তিনিই ফাঁসি দিয়েছিলেন। এই ফাঁসির দায়িত্বও রয়েছে তার উপরই। দু’বার ফাঁসিরকাষ্ঠও পরীক্ষা করা হয়ে গেছে।

কিন্তু কেন ফাঁসি দেয়া হচ্ছে শবনমকে? জানা গেছে, ২০০৮ সালের এপ্রিল মাসে নিজের পরিবারের সাতজন সদস্যকে কুড়াল দিয়ে ছিন্নভিন্ন করে দেন তিনি। একাজে তাকে মদদ জুগিয়েছিেলন তার প্রেমিক। আমরোহা জেলার হাসানপুরের বাসিন্দা ধনী পরিবারের সদস্য শবনমের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল স্থানীয় ওই যুবকের। ইংরেজি ও ভূগোলে স্নাতকোত্তর পাশ করেছিলেন তিনি। স্কুলের গণ্ডি না পেরনো সেলিমের সঙ্গে তার সম্পর্ক মেনে নেননি তার বাড়ির লোকেরা। আর সে কারণেই প্রতিশোধস্পৃহায় বাবা, মা, দশ মাসের ভাইপোসহ সাতজনকে নৃশংসভাবে মেরে ফেলেন শবনম। এই অপরাধকে ‘বিরল’ আখ্যা দিয়ে তাকে ফাসির সাজা শুনিয়েছে আদালত।

মথুরার যে ফাঁসিঘরে শবনমের ফাঁসি হওয়ার কথা, সেটির বয়স প্রায় ১৫০ বছর। কিন্তু স্বাধীনতার পর থেকে কোনও ফাঁসি হয়নি এখানে। জেলের সিনিয়র সুপারিনটেন্ডেন্ট শৈলেন্দ্রকুমার মৈত্রেয় বেলন, এখনও ফাঁসির দিন চূড়ান্ত নয়। কিন্তু আমরা প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছি। ডেথ ওয়ারেন্ট পেলেই শবনমকে ফাঁসি দেয়া হবে।

তিনি আরও জানিয়েছেন, বক্সার থেকে ফাঁসির দড়ি আনানো হচ্ছে। পবন জল্লাদ ফাঁসিঘর পরীক্ষা করে ফাঁসি দেয়ার লিভার ও বোর্ডে কিছু পরিবর্তন করার জন্য বলেছেন জেল কর্তৃপক্ষকে।



Related posts